টানা বৃষ্টিতে বোরো চাষীরা মহাখুশি

0
411

প্রতিবেদকঃ এইচ এম রফিকুল ইসলাম (ভিপি কামাল)

শ্রীমঙ্গল থানা প্রতিনিধি

প্রচণ্ড খরার পর মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে শুক্রবার ভোররাতে টানা বৃষ্টিপাত হওয়ায় বোরো চাষীরা মহাখুশি। এর আগে খরায় জমি ফেটে চৌচির হয়ে যাওয়ায় কৃষকরা হতাশায় ছিলেন। অবশেষে প্রচণ্ড বৃষ্টিতে কৃষকরা মহাখুশি। শুক্রবার ভোর ২টা হতে শুরু হয়ে সকাল ১০টা পর্যন্ত একটানা বৃষ্টিপাত হয়।

জানা যায়, উপজেলা ৯টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌর এলাকায় এ বছর বোরো আবাদ হয়েছে ৪,১২০ হেক্টর জমিতে। কৃষকরা বোরো ধান নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন। সময়মতো বৃষ্টিপাত না হওয়ায় আবাদি জমিতে পানি সংকট দেখা দেয়। পানির লেয়ার নিচে চলে যাওয়ায় পানির পাম্প, শ্যালো মেশিন ও টিউবওয়েলে পানি আসছিল না। ফলে নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় কৃষকদের। আর ওইসব জমিতে পানি সকালে দিলে বিকেলে শুকিয়ে যেত। ডিজেলচালিত মেশিনে বোরো জমির মালিকদের চরম দৈন্যদশা পোহাতে হচ্ছে।

পতনউষার, কমলগঞ্জ সদর, আলীনগর, আদমপুরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে খরায় জমি ফেটে গিয়ে চৌচির হয়ে যায়। অবশেষে চরম শঙ্কার মাঝে স্বস্তির নিশ্বাস নিতে পেরেছে কৃষক। পৌর এলাকার কৃষক জমির মিয়া জানান, এ বৃষ্টি খুবই দরকার ছিল বোরোর জন্য। আমরা খুশি হয়েছি টানা বৃষ্টিপাত হওয়ায়। কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আশরাফুল আলম জানান, এ বছর বোরো আবাদ হয়েছে ৪,৩২০ হেক্টর জমিতে। বৃষ্টি না হওয়ায় পানি সংকট ছিল। আশা করি শুক্রবারে বৃষ্টিপাত বোরো চাষাবাদে উপকার হবে।

এফএম নিউজ

আপনার এগিয়ে যাওয়ার সঙ্গী

বিজ্ঞাপন+বার্তা বিভাগঃ 01831106108